টঙ্গীবাড়ীতে ১৪ দিন যাবৎ নিখোঁজ ৩ সন্তানের বিধবা জননী, পরিবারের অভিযোগ অপহরণ

মোজাফফর হোসেন: টঙ্গীবাড়ী উপজেলার চিত্রকড়া গ্রাম হতে ৩ সন্তানের জননী বিধবা লাভলী বেগম ১৪ দিন যাবৎ নিখোঁজ রয়েছেন। ওই জননীর খোঁজে না পেয়ে তার পরিবার চরম উৎকন্ঠায় রয়েছে। তবে নিখোঁজ লাভলীর পরিবারের লোকজন তাকে অপহরন করা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেছে।

জানাগেছে, উপজেলার চিত্রকড়া গ্রামের নুর হোসেন সৈয়াল মন্টু (৪৫) গত ৭ মাস আগে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। সে মারা যাওয়ার পর তার প্রতিবেশী কাকা ৩ সন্তানের জনক মালেক সৈয়াল ওরফে কসাই মালেক (৫০) তার স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী লাভলী বেগমকে দির্ঘদিন যাবৎ কু- প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। পরে ওই গৃহবধূ গত ২১ জুলাই টঙ্গীবাড়ী বাজারে ঈদ কেনা কাটা করতে গেলে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় কসাই মালেক গংরা। এ ব্যাপারে লাভলী বেগম এর বড় মেয়ে পাঁচগাও ওয়াহেদ আলি দেওয়ান উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী মিম আক্তার জানান, আমার বাবা গত ৭ মাস আগে মারা যাওয়ার পর হতেই আমাদের প্রতিবেশী মালেক দাদা প্রায় আমাদের ঘর আসতো আমার মাকে অনেক বিরক্ত করতো। মা মাঝে মাঝে কান্নাকাটি করতো।

এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূর শশুর আবুল সৈয়াল জানান, ১৪ দিন যাবৎ আমি আমার পুত্র বধূর কোন খোঁজ পাচ্ছিনা। ওরা মনে হয় আমার গৃহবধূকে খুণ করেছে। ঘটনার পর হতে মালেক সৈয়াল এলাকা হতে পালিয়েছে। আমার মৃত ছেলের ২ বছরের একটি শিশু সন্তানসহ ৩টি সন্তান নিয়ে আমি এখোন চরম অশান্তিতে আছি। এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর আমি একাধিকবার পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। পুলিশের উপস্থিতি টের পেলেই অভিযুক্ত ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়।

Leave a Reply