নারায়ণগঞ্জে গার্মেন্টস কর্মীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মমতাজ বেগম (৩৮) নামে এক গার্মেন্টস কর্মীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নিহতের স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার মাসাবো এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সকালে পুলিশ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মমতাজ বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত মমতাজ বেগম মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং থানার গাওদিয়া এলাকার নুরুল ইসলামের মেয়ে। আটক স্বামী রঞ্জু জামালপুরের মেলান্দহ থানার শরীফের ছেলে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান জানান, মমতাজ বেগম তার দ্বিতীয় স্বামী রঞ্জুর সঙ্গে কয়েক মাস ধরে বসবাস করে আসছিলেন। তার স্বামী পেশায় রিকশাচালক। সোমবার রাত আড়াইটার দিকে প্রতিবেশী এক নারী ঘরের জানালা খোলা দেখে উঁকি দিলে মমতাজের হাত-পা বাঁধা ও গলা কাটা মরদেহ দেখতে পায়।

পরে পুলিশকে খবর দিলে সকালে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নিহতের স্বামী রঞ্জুকে আটক করা হয়েছে পাশাপাশি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বার্তা২৪.কম

Leave a Reply