বাড়িতে একা পেয়ে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টা

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার ধোপড়াপাশা গ্রামে এক কিশোরীকে বাড়ির পাশের বাগানে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। পরে ওই কিশোরীর চিৎকার শুনে এলাকাবাসী গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় দুই লম্পট পালিয়ে যায়।

ধর্ষণচেষ্টার এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টঙ্গীবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

জানা যায়, ধোপড়াপাশা গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী পিতা ভুক্তভোগী ওই কিশোরীকে (১৫) বাড়িতে একা রেখে গাছের ব্যবসা করার জন্য বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। পরে একই দিন সন্ধায় ওই গ্রামের ইউনুস শিকদারের ছেলে ধর্ষক রিফাত ওই কিশোরীর প্রতিবেশীকে দিয়ে প্রথমে তাকে ডেকে বাড়ির বাহিরে নিয়ে যান। পরে জোর করে পার্শ্ববর্তী কাঠ বাগানে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এলাকাবাসী চিৎকার শুনে তাকে উদ্ধার করে।

ভুক্তভোগী ওই কিশোরীর পিতা জানান, ‘আমার স্ত্রী মারা গেছে। ৫ মেয়ের মধ্যে ৪ মেয়ের বিয়ে দিয়ে দিয়েছি। ছোট মেয়েটি একাই বাড়িতে থাকে। আমি গাছের ব্যবসার কাজে বাড়ির বাহিরে ছিলাম বুধবার সন্ধায় আমার মেয়েক এক প্রতিবেশী দিয়ে ডেকে বাড়ির বাহিরে নিয়ে বাগানের ভিতরে নিয়ে যায় সিফাত। পরে এলাকার লোকজন চিৎকার শুনে ওকে উদ্ধার করে।’

এ ঘটনায় টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি হারুন অর রশিদ জানান, ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ব্যাপারে টঙ্গিবাড়ী থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply