মুন্সীগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত ১৮২ কিলোমিটার সড়ক

মুন্সীগঞ্জের ছয়টি উপজেলায় এবারের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ১৮২ কিলোমিটার সড়ক ও কালভার্ট। এর মধ্যে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ( এলজিইডি) এর আওতায় থাকা ১৭৬ কিলোমিটার সড়ক। আর সড়ক ও জনপদ বিভাগের (সওজ) সড়কের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ছয় কিলো ৫০০ মিটার সড়ক। ক্ষয়ক্ষতির মোট আর্থিক পরিমান ৪১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। সংশ্লিষ্ট বিভাগ ঢাকাটাইমসকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলোতে ভাঙন, পিচ ঢালাই উঠে যাওয়া ও গর্ত হওয়াসহ নানা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কোনো এলাকা বিলীন হয়েছে ব্রিজের অ্যাপ্রোচ সড়কসহ প্রধান সড়কের অংশ।

মুন্সীগঞ্জ স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী রফিকুল হাসান জানান, জেলার ছয়টি উপজেলায় এলজিইডির আওতাধীন সড়কগুলোর মধ্যে ৪৮টি সড়ক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এগুলোর মোট আয়তন ১৭৬ কিলোমিটার। এতে আর্থিক ক্ষতির পরিমান ৩৯ কোটি চার লাখ টাকা।

এলজিইডি অফিস সূত্রে আরো জানা গেছে, এই বিভাগের আওতায় থাকা সড়কগুলোর মধ্যে এবারের বন্যায় সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে টঙ্গীবাড়ী উপজেলার সড়কগুলো। এ উপজেলায় এলজিইডির ৫৫ কিলোমিটার সড়ক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এরপরই রয়েছে সদর উপজেলা। মুন্সীগঞ্জ সদরে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের আয়তন ৪৬ কিলোমিটার।

এছাড়াও সিরাজদিখানে ২৩ কিলোমিটার, গজারিয়া ২৩ কিলোমিটার, লৌহজং ১১ কিলোমিটার এবং শ্রীনগরে ১৮ কিলোমিটার সড়ক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার গোলাম মোস্তফা জানান, এবারের বন্যায় মুন্সীগঞ্জ সড়ক ও জনপদ বিভাগের সাত কিলো ৫০০ মিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে ঢাকা জেলার বেশ কিছু এলাকা মুন্সীগঞ্জ সওজের অধীনে রয়েছে। মুন্সীগঞ্জে সওজের মোট ৩৬৭ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। এর মধ্যে এবারের বন্যায় শুধুমাত্র মুন্সীগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তার আয়তন ছয় কিলো ৫০০ মিটার। যার আর্থিক পরিমান দুই কোটি ৪০ লাখ টাকা। দ্রুতই এসব সড়ক সংস্কার করা হবে বলে জানিয়েছে মুন্সীগঞ্জ এলজিইডি ও সওজ বিভাগ।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply