করোনা মোকাবেলায় জাপান সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ

রাহমান মনি: বিশ্ব বলতে গেলে স্থবির হয়ে পড়েছে। বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ নামক একটি ভাইরাস মোকাবেলায় পুরো বিশ্ব হিমশিম খাচ্ছে। ক্ষমতাধর রাষ্ট্রপ্রধান, বিশেষজ্ঞ বিজ্ঞানীদের নির্ঘুম রাত কাটছে। কোন উদ্যোগ যেন কার্যকর হচ্ছে না।

বিশ্ব দাপিয়ে বেড়ানো করোনা নিত্যনতুন রূপ পাল্টাচ্ছে। নতুন ধরনের(নিউ স্ট্রেইন)খুবই সংক্রামক। ব্রিটেন সহ ইউরোপ এর অনেক দেশেই ইতোমধ্যে করোনার নতুন জিন সনাক্ত করা হয়েছে।ইউরোপ এর অনেক শহরেই কঠিন লকডাউন করা হয়েছে। জাপানে যদিও লকডাউন করা হয়নি তথাপি সাবধানতা অবলম্বনের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে।

জাপানে মোট করোনায় আক্রান্তে শনাক্তের সংখ্যা দুই লাখ অতিক্রম করে গেছে। সংখ্যার দিক থেকে তা ২০৬,৮৫৬ জন। আর জাপান জুড়ে এপর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ২,৮৭৭ জন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধির ফলে জাপান সরকার পূর্ব ঘোষিত ভ্রমণ ভর্তুকি কর্মসূচী ‘গো টু ট্রাভেল’ নতুন বছরের ছুটিতে স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২৮ ডিসেম্বর ‘২০ থেকে ১১ জানুয়ারি ’২১ পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে। সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা এ ঘোষণা দেন।

এছাড়া সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গুলিতে নববর্ষের ছুটি দীর্ঘায়িত করার অনুরোধ জানানো হয়। সাধারনত এ ছুটি ২৯ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত হয়ে থাকে। কিন্তু এবছর তা দীর্ঘায়িত করে প্রাপ্তবয়স্ক দিবস এর সাধারন ছুটি (১১ জানুয়ারি)পর্যন্ত একটানা ছুটি ঘোষণার অনুরোধ জানানো হয়।

করোনা সংক্রমণ আয়ত্বে রাখতে টোকিও গভর্নর ইউরিকো কোইকের আহবানে কানাগাওয়া, সাইতামা ও চিবা প্রদেশের স্থানীয় সরকার গুলোর অনুরোধে পূর্ব জাপান রেলওয়ে টোকিও মেট্রোপলিটান অঞ্চলে ১২টি রেলওয়ে এবং সাবওয়ে অপারেটর ডিসেম্বর ৩১ তারিখ থেকে জানুয়ারির ১ তারিখ পর্যন্ত রাত্রিকালীন ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে। ১৯৮৭ সালে পূর্ব জাপান রেলওয়ে চালু হ’বার পর এই প্রথম নববর্ষে ট্রেন সার্ভিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হল। নতুন বছরের প্রাক্কালে জনসমাগম নিয়ন্ত্রন করার জন্য এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

নববর্ষ উপলক্ষে সম্রাট কর্তৃক রাজপরিবারের অভিবাদন আসন্ন নববর্ষে স্থগিত কিংবা স্বাস্থ্য বিধি মেনে সীমিত আকারে করার বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য জাপানে জনগনের উপর সরকার কর্তৃক কোন কিছুই চাপিয়ে দেয়া হয়না। অনুরোধ করা হয় মাত্র।কারন, এখানে জনগনের অধিকারের প্রতি সন্মান জানানো হয়ে থাকে। আর জনগনও প্রশাসনের অনুরোধ মেনে চলার চেষ্টা করে।

ছবি – ইন্টারনেট
rahmanmoni@gmail.com

Leave a Reply