ইটের আঘাতে হত্যা করা হয় ৫ বছরের শিশু রিফানকে

কুমিল্লার মেঘনায় ৫ বছরের শিশু রিফানুল ইসলাম রিফানের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধারের ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই হত্যার রহস্য উদঘাটন ও মূল আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরপর ১৬৪ ধারায় আদালতকে দেওয়া জবানবন্দিতে ঘাতক শাকিল জানায় ইট দিয়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় শিশু রিফানকে।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) নিরবচ্ছিন্ন তদন্ত ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মুন্সীগঞ্জ জেলা গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর এলাকা থেকে হত্যাকান্ডের মূল ঘাতক শাকিলকে (২২) গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে ১০ দিন নিখোঁজ থাকার পর গত শনিবার (২৩ জানুয়ারি) শিশু রিফানের অর্ধগলিত লাশ মেঘনা উপজেলার ওমরকান্দা ব্রিজ এলাকায় পুরাতন মেঘনা নদী থেকে উদ্ধার হয়। এর আগে শিশু রিফানের মা বাদী হয়ে মেঘনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফজলুল করিম জানায়, কুমিল্লা পুলিশ সুপার নির্দেশনায় আলোচিত শিশু রিফান হত্যাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে মাঠে নামে মেঘনা থানা পুলিশ। অবশেষে রিফানের লাশ উদ্ধারের মাত্র ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশের কর্মতৎপরতায় উদঘাটন হয় চাঞ্চল্যকর শিশু রিফান হত্যা মামলার রহস্য। নিরবচ্ছিন্ন তদন্ত ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর এলাকা থেকে আটক করা হয় হত্যাকান্ডের মূল ঘাতক শাকিলকে।

মেঘনা থানার ওসি আবদুল মজিদ জানান, হোমনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফজলুল করিমের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত করে আসামি শাকিল গ্রেফতার হয়। ইট দিয়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করার ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় ঘাতক শাকিল।

সময় নিউজ

Leave a Reply