প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হুমায়ূন শেখ (৬০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ গ্রাম্য মাদবররা ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছেন।

অভিযুক্ত হুমায়ূন শেখ উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের মৌছা গ্রামের প্রয়াত মোসলেম উদ্দিনের ছেলে।

ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ মার্চ (মঙ্গলবার) প্রতিবন্ধী কিশোরীকে পাশের একটি বাড়িতে পানি দিতে বলেন হুমায়ুন। ওই কিশোরী পানি দিতে গেলে তাকে ধর্ষণ করেন লম্পট হুমায়ুন। পরে ভুক্তভোগী তার মাকে বিষয়টি জানায়। বিচারের দাবিতে ভুক্তভোগীর মা বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আতিকুল ইসলাম খান শিমুলকে বললে তিনি কাউকে জানাতে নিষেধ করেন।

কিশোরীর বাবা অভিযোগ করেন, ‘হলদিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার শিমুল এবং গ্রাম্য মাদবর দুলাল মোল্লা, মৌসুমী নামের কয়েকজন পুরো ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছেন। তারা ধর্ষক হুমায়ুনকে তড়িঘড়ি করে এলাকা থেকে অন্যত্র পাঠিয়ে দেন। ঘটনার প্রায় ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো কোন সুবিচার পাইনি। আমি ধর্ষকের বিচার চাই।’

অভিযোগ অস্বীকার করে স্থানীয় মেম্বার আতিকুল ইসলাম খান শিমুল বলেন, ‘ধর্ষণের বিষয়টি জানালে আমি বলেছি আমি বিচার করে দিবো। পরবর্তীতে আমি ধর্ষককে জানালে বিষয়টি হুমায়ুন শেখ অস্বীকার করেন। পরে আমি তাদেরকে থানায় যেতে বলেছি।’

এ বিষয়ে লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসাইন বলেন, ‘ধর্ষণের বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি। বিচার করার এখতিয়ার কোনো গ্রাম্য মাদবরের নেই।’

জাগো নিউজ

Leave a Reply