শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের বিক্ষোভ

নদী পার হওয়ার দাবিতে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আটকে পড়া যাত্রীরা। সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল থেকে তারা ঘাট এলাকায় বিক্ষোভ শুরু করেন। এর আগে রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বৈরী আবহাওয়ার কারণে যাত্রীরা ঘাটে আটকা পড়েন।

সোমবার (৫ এপ্রিল) ভোর থেকে সারাদেশে সাত দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধের কারণে শিমুলিয়া ঘাটে ফেরিসহ সকল ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

আটকে পড়া দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীরা বলেন, গতকাল সন্ধ্যায় শিমুলিয়া ঘাটে পৌঁছালে বৈরী আহাওয়ার কারণে ফেরিসহ সকল ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। পরে ফেরিসহ আর কোনো নৌযান চলাচল শুরু করেনি। আমরা যারা ঘাটে আটকা পড়েছি তাদের যেন কর্তৃপক্ষ পার করার ব্যবস্থা করে দেয়।

মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের টিআই হিলাল উদ্দিন বলেন, কঠোর বিধিনিষেধের কারণে রোববার থেকে শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় যাত্রী ও পরিবহনের চাপ বেড়ে যায়। সন্ধ্যার দিকে বৈরী আবহওয়ার কারণে সকল প্রকার নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়। সকাল থেকে কোনো ফেরি না চলায় আটকা পড়া যাত্রীরা পার হতে পারছিল না। তাই ক্ষুব্ধ হয়ে তারা পারাপারের জন্য বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ঘাট এলাকায় পারাপারের জন্য ৭ শতাধিক গাড়ি অপেক্ষা করছে। এর মধ্যে ৫০টির মতো যাত্রীবাহী বাস, ৪ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাকসহ বিভিন্ন প্রকার যানবাহন রয়েছে। তবে কিছুক্ষণ আগে একটি ফেরি ছেড়ে গেছে।

এ বিষয়ে জানতে শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক শফিক আহমেদ ও ব্যবস্থাপকের (বাণিজ্য) মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তারা কল রিসিভ করেনি।

ব.ম শামীম/ঢাকা পোষ্ট

Leave a Reply