পাঁচ দিনের ব্যবধানে ২য় বিয়ে করতে গিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা শ্রীঘরে

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হাতিয়া উপজেলায় ৫ দিনের ব্যবধানে দুই বিয়ের চেষ্টা করার অভিযোগে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন রাজিবকে (২৭) আটক করেছে পুলিশ। সোমবার বিকালে আটকের পর মঙ্গলবার দুপুরে তাকে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এ ব্যাপারে শাশুড়ি হোসনে আরা বেগম বাদী হয়ে জামাতা আব্দুল বাতেন রাজিব ও তার বড়ভাই আজিম উদ্দিনকে আসামি করে মঙ্গলবার সকালে হাতিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, গত ২২ জুলাই হাতিয়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের চর কৈলাস গ্রামের আব্দুল হালিম মিয়ার ছেলে আব্দুল বাতেন রাজিবের সঙ্গে তমরদ্দি ইউনিয়নের ক্ষিরোদিয়া গ্রামের ডা. আলী আকবর হোসেনের মেয়ে তাছলিমা আকতার শিউলির বিয়ে হয়। তাছলিমা আকতার মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলায় মৎস্য বিভাগে কর্মরত আছেন।

এদিকে সোমবার হাতিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের শুন্যেরচর গ্রামের মাস্টার আব্দুল আলিম রুবেলের মেয়েকে বিয়ে করার জন্য যাওয়ার পথে পুলিশ আব্দুল বাতেন রাজিবকে আটক করে।

এ ব্যাপারে মাস্টার আব্দুল আলিম রুবেলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার মেয়েকে দেখার জন্য আসলে পুলিশ আমার বাড়ির সামনে থেকে তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আবুল খায়ের বলেন, রাজিব দ্বিতীয় বিয়ে করেছে কিনা এ বিষয়ে আমরা এখনো কোনো প্রমাণ পাইনি।

যুগান্তর

Leave a Reply