মুন্সিগঞ্জ হাসপাতালে অবহেলায় নারীর মৃত্যুর অভিযোগ

মুন্সিগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার অবহেলায় যুথী (২৮) নামে এক নারীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে তিনি মারা যান।

স্বজনরা জানান, শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে পেট ব্যথা নিয়ে মুন্সিগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় যুথীকে। তার একদিন পরই রোববার ভোরে মারা যান যুথী।

যুথীর স্বামী মাসুদ অভিযোগ করে বলেন, ‘চিকিৎসাধীন অবস্থায় ব্যথার যন্ত্রণা বাড়লে রাত সাড়ে ৩টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার স্ত্রীকে একটি ইনজেকশন পুশ করেন। এ সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলেও কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের মধ্যে কেউ এগিয়ে আসেননি। বিনা চিকিৎসায় আমার স্ত্রী মারা যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘নার্সদের ডাকলে তারা বলে তাদের ঘুমের সমস্যা হচ্ছে। একটা ডাক্তারও ছিল না, এরপরও নার্সরা বলে ডাক্তার এসে দেখবে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেব।’

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফেরদৌস হাসান জানান, ওই নারীর অবস্থা শনিবার থেকেই খুব খারাপ ছিল। রাতে তার ব্যথা যন্ত্রণা আরও বেড়ে গেলে ভোরে তার মৃত্যু হয়।

সিভিল সার্জন ড. আবুল কালাম আজাদ জানান, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সারারাতই একজন চিকিৎসক দায়িত্ব পালন করেন। কিন্তু ইনজেকশন দেওয়ার পর ওই রোগীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে তা চিকিৎসককে জানানো হয়নি। তাই চিকিৎসকের অবহেলার বিষয়টি ভিত্তিহীন।

আরাফাত রায়হান সাকিব/জাগো নিউজ

Leave a Reply