চাঁদাবাজী মামলার আসামীকে গ্রেফতার দাবিতে সিরাজদিখানে মানববন্ধন

রাজাকারের ছেলে, সরকারী খালের মাটি বিক্রেতা নিরীহ মানুষের উপর অত্যাচারকারী, ভূমিদস্যু ব্যানারে লিখে এ সংক্রান্ত চাঁদাবাজ মামলার আসামিদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শনিবার সকাল ১০ টায় সিরাজদিখান উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লে· ভবনের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। বেলা ১০টায় বাসাইল ইউনিয়নের গুয়াখোলা গ্রামের জনগনের যৌথ উদ্যোগে ১ ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচীতে বাজারের ব্যবসায়ী, স্থানীয় জন প্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ শতাধিক লোক অংশ গ্রহণ করেন। সিরাজদিখান উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা গুয়াখোলা গ্রামবাসী ও অন্যান্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন। মানববন্ধন শেষে গ্রামবাসী ও নেতাকর্মীরা এক বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

বাসাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আতিকুর রহমান সরকার বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন , বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম,মোঃ ফরিদ সরকার,মোঃ আসলাম হাওলাদার ডিএম, আতিকুর রহমান সরকার বাবু,মোঃ আলম সরকার,মোঃ রাসেল হাওলাদার,মোঃ আসাদুজ্জামান সরকার,অপু সরকার প্রমুখ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম বলেন, রাজাকার রফিজদ্দিন আহম্মেদ ( সোনামিয়া)সরকারের ছেলে সামসুজ্জামান পনিরসহ সকল চাঁদাবাজি ভ’মি দস্যু মামলার আসামীদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে। বাসাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আতিকুর রহমান সরকার বাবু বলেন,সামসুজ্জামান পনির একজন রাজাকারের ছেলে। সামসুজ্জামান পনির গুয়াখোলা ঈদগায়ের পনের শতাংশ জায়গা নিজেরা বাদী বিবাদী হয়ে মামলা কওে জিতে দখল করেছে।

মোঃ ফরিদ সরকার বলেন, সোনামিয়া সরকারের ছেলে সামসুজ্জামান পনিরের নামে অনেক মামলা রয়েছে কিন্তু তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। সিরাজদিখান থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ বোরহানউদ্দিন বলেন, সিরাজদিখান থানায় মামলা আছে ওয়ারেন্ট হলে তাকে অবশ্যই গ্রেফতার করা হবে।

গ্রামনগর বার্তা

Leave a Reply