গণপিটুনি থেকে বাঁচতে ছিনতাইকারীর ৯৯৯-এ ফোন

গণপিটুনি থেকে বাঁচতে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চান এক নারী। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পায়, যিনি সহায়তা চেয়েছেন তিনি একজন ছিনতাইকারী। এক ব্যক্তিকে স্বামী পরিচয় দিয়ে তিনি ছিনতাই করে বেড়ান। পুলিশ তাকে গণপিটুনি থেকে বাঁচালেও কথিত এই দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতাররা হলেন- সাথী আক্তার (২৫) ও তার কথিত স্বামী নাজমুল (২৫)। বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) জাতীয় জরুরি সেবার পরিদর্শক (মিডিয়া) আনোয়ার সাত্তার এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এক নারী মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থানাধীন জামালদি বাসস্ট্যান্ড থেকে ৯৯৯-এ ফোন করে জানান, স্বামীসহ তাকে এলাকার কিছু লোক মিথ্যা চুরির অভিযোগে আটকে মারধর করছে।

বিষয়টি গজারিয়া থানায় জানিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়। খবর পেয়ে গজারিয়া থানা পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

পরে গজারিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাঈনুদ্দীন ৯৯৯-কে ফোনে জানান, ওই নারী এবং তার কথিত স্বামী পেশাদার অপরাধী। মঙ্গলবার বিকেলে তারা একটি অটোরিকশা ভাড়া করে বিভিন্ন জায়গায় ঘোরাঘুরি করছিলেন। একপর্যায়ে একটি নির্জন স্থানে চালক হৃদয়কে মারধর করে অটো নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। হৃদয় বিষয়টি ফোনে অন্য চালকদের জানালে তারা ধাওয়া করে কথিত স্বামী-স্ত্রী ছিনতাইকারীকে আটক করে।

এই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, পরে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। উভয়ই গজারিয়ার পুরান বাউসিয়ার বাসিন্দা। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

সোনালীনিউজ

Leave a Reply