সিরাজদিখানে যৌতুক মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি আসামির, থানায় জিডি

মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখানে যৌতুকের জন্য মারপিট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলার আসামি জামিন পেয়ে বাদীকে মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ রবিবার সিরাজদিখান থানায় এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডাইরী করেছেন নীরেশ চন্দ্র সরকারের মেয়ে অমিতা সরকার(৩২) ।

অমিতা সরকার বলেন, গত ৬ ডিসেম্বর ২০২০ইং তারিখে সনাতন (হিন্দু) ধর্মের রীতিনীতি অনুযায়ী অগ্নিকে স্বাক্ষী রাখিয়া সাতপাকে ঘুড়িয়া, শাখাঁ, সিদুঁর পরে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। বিয়ের সময় পাত্র পক্ষের চাহিদা মোতাবেক সাত লাখ টাকা নগদ পন দেওয়া হয়। বিয়ের চার দিন পরেই আবার আমার স্বামী রাজিব মন্ডল ও তার পরিবারের লোকজন কাঠের ফার্নিচার ও আারো সাত লাখ টাকা দাবি করে মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান উপজেলার রাজানগর গ্রামে স্বামী রাজিব মন্ডলের বাড়িতে যৌতুকের জন্য নির্মমভাবে মারপিট করে করেন স্বামী রাজিব মন্ডল ও তার পরিবারের লোকজন। এ ঘটনায় অমিতা সরকার বাদী হয়ে রাজিব মন্ডলকে (৩৬) প্রধান আসামী করে এবং তাঁর শাশুরি কানন মন্ডল,ননাস পলি মন্ডল, সজিব মন্ডল, সুকুমার মন্ডল বাবুসহ ৫জনকে আসামি করে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল থেকে জামিন নেন চারজন। এর পর থেকে মামলা তুলে নিতে তাঁর বাবা ও পরিবারের সবাইকে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন রাজিব মন্ডল।

নিরাপত্তা চেয়ে আজ রোববার সিরাজদিখান থানায় জিডি করেন জিডি নং-১০৮৯(২৪.১০.২০২১ইং)জিডি করেও নিরাপত্তাহীনতায় বাদীর পরিবারের সদস্যরা। আসামীদের জামিন বাতিল করে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অমিতা সরকার।

এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানার পরিদর্শর্ক (ওসি তদন্ত) আজগর হোসেন জানান, অমিতা সরকারকে যৌতুকের জন্য মারপিট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলার আসামি জামিন পেয়ে বাদীকে মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন বলে আজ থানায় অমিতা সরকার সাধারণ ডাইরী করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

গ্রামনগর বার্তা

Leave a Reply