সিরাজদিখানে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিলো প্রতিপক্ষ

মুন্সিগঞ্জ সিরাজদিখানে এক স্বর্ণ ব্যাবসায়ীকে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। তুচ্ছ বাকবিতন্ডা ও পারিবারিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরে পরিকল্পিত হামলায় রনি দাস (৩২) নামে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর পা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ রবিবার (০৭ নভেম্বর) সকাল সারে ৮টায় উপজেলার দক্ষিন তাজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতকে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও আহতের স্বজনরা জানায়, বিয়ের যৌতুক নিয়ে ভূয়া বিয়ে কথা কাটাকাটি ও পারিবারিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ দীর্ঘদিনের। ওই বিরোধের জেরে দক্ষিনতাজপুর তিন দোকান এলাকায় অশ্লীল গালিগালাজ করায় দুই পক্ষের সংঘাত-সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। ধারাবাহিক এ দ্বন্দেদ্বর জেরে আজ রবিবার হামলার শিকার হয় দক্ষিন তাজপুর গ্রামের অনিল চন্দ্র দাসের ছেলে রনি চন্দ্র দাস।

আহতের ছোট ভাই জনি দাস বলেন, আমার বড় ভাই রনি দাস তিন দোকান মোড়ে যাওয়ার পরপরই সমীরের নেতৃত্বে সুশীল দাস, অধির দাসসহ দুবৃত্তরা, লাঠিশোঠা নিয়ে রনির উপর চড়াও হয়। সে সময় তার বাম পা পিটিয়ে ভেঙ্গে দেয়াসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে· হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত অধির দাস বলে কথাকাটাকাটি গালিগালাজের এক পর্যায়ে রনি দাস মাটিতে পরে যেয়ে ওর পায়ে ব্যাথা পায়।

সিরাজদিখান থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিন বলেন, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে তদন্ত কের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গ্রামনগর বার্তা

Leave a Reply