১৮ লাখ টাকা নগদ নিয়ে সিরাজদিখানে জমি বিক্রির নামে প্রতারণার অভিযোগ

মুন্সিগঞ্জ সিরাজদিখানে সম্পত্তি ক্রয়করে করে প্রতারক চক্রের খপ্পরে পড়েছে এক ব্যবসায়ী পরিবার। জমি বিক্রি করে সাব-কবলা রেজিস্ট্রি করে দলিল করে টাকা গ্রহণ করেও জমি গ্রহীতাকে নাল জমিতে বালু ভরাটে বাধা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। এমনকি জমি গ্রহীতার কাছ থেকে নেয়া ১৮ লাখ টাকা গ্রহণ করে আত্মসাৎ করতে প্রতারক চক্রটি একের পর এক চক্রান্তে লিপ্ত হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীনসহ প্রতারক চক্রের ষড়যন্ত্রের ফাঁদে আটকে ব্যবসায়িক পরিবারটি চরম হতাশা গ্রহস্থ হয়ে পড়ে গত শুক্রবার রাতে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এ প্রতারক চক্রের হোতা সিরাজদিখান উপজেলার কেয়াইন ইউনিয়নের হাজীগাও গ্রামের মৃত হাতেম আলীর ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম গোরাপী ও তার মা মাল্লা বেগম নগদ টাকা দিয়ে জমির গ্রহীতা ইয়াকুব আহম্মেদ ও মোঃ সোহেল আহম্মেদকে জীবননাশের হুমকি-ধমকি দিয়ে চলছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার কেয়াইন ইউনিয়নের হাজীগাও গ্রামের বাসিন্দা ব্যবসায়ী মোঃ সোহেল আহম্মেদ তার ছেলে ইয়াকুব আহম্মেদের নামে তার প্রতিবেশী মৃত হাতেম আলী গোরাপীর ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম গোরাপীর কাছ থেকে ৩৮৮ হাজীগাও মৌজার আর এস ৭০১ নং দাগের ৩.৩৮(তিন দশকি আটত্রিশ) শতক সম্পত্তি নগদ টাকা পরিশোধ কওে সাব-কবলা রেজিস্ট্রি ও নামজারি সম্পন্ন হয়। ১৩/০৬/২০২১ইং তারিখে জমির বাজার মূল্য ১৮ লাখ টাকা নগদ দিয়ে ক্রয়কৃত নাল জমির দখলে যান ইয়াকুব আহম্মেদ ও তার পিতা মোঃ সোহেল আহম্মেদ। গ্রহীতা ইয়াকুব আহম্মেদের অনুকূলে সম্পত্তি সাব-কবলা দলিল রেজিস্ট্রির দলিল ও নামজারীর বৈধ কাগজপত্র থাকলেও জমি বিক্রেতা মোঃ সাইফুল ইসলাম গোরাপী ও তার মা মাল্লা বেগম জমি গ্রহীতাকে ক্রয়কৃত নাল সম্পত্তিতে বালু ভরাটে বাধা দিয়ে অর্থ আত্মসাতের চক্রান্তে লিপ্ত হয়। এছাড়া জমি গ্রহীতাকে নানাভাবে হুমকি-ধমকিসহ ভয়ভীতি করছে।

উত্থাপিত অভিযোগ প্রসঙ্গে মোঃ সাইফুল ইসলাম গোরাপীর মা মাল্লা বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান সোহেলের ছেলের নিকট জমি বিক্রির পূর্বে আমার নামে ওই জমি আমার ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম গোরাপী হেবা করে লিখে দিয়েছেন। একই সঙ্গে এ বিষয় তিনি আইনি প্রক্রিয়ায় এগোতে চাইছেন বলেও জানান।

এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানার অফিসার্স ইনচার্জ(ওসি) মোঃ বোরহান উদ্দিন বলেন, গত শুক্রবার রাতে জমি বিক্রি করে দখলে যেতে বাধা দেওয়া ও প্রানে মেরে ফেলার ভয়ভীতি দেখানো উল্লেখ করে হাজীগাও গ্রামের মোঃ সোহেল আহম্মেদ একটি লিখিত অভিযোগ হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গ্রামনগর বার্তা

Leave a Reply