শ্রীনগরে প্রতি কেজি ইলিশ বিক্রি ২০০ টাকায়

শ্রীনগরে ফেরি করে নদীর ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে সস্তা দামে। উপজেলার বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে, মার্কেটের সামনে ও গ্রামের পাড়ায়-মহল্লায় ভ্যান গাড়িতে করে পছন্দের ইলিশ বিক্রি করা হচ্ছে কেজি প্রতি মাত্র ২০০ টাকা দরে। ঝামেলা মুক্ত কাটা এসব ইলিশ মাছ কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন ক্রেতারা।

দেখা গেছে, আইসবক্সে করে ইলিশ মাছ বিক্রি করছেন কয়েকজন বিক্রেতা। মানুষের ক্রয় ক্ষমতার নাগালে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ তাদের চাহিদা অনুযায়ী পরিমান মত ইলিশ কিনে নিচ্ছেন। কম দামে পছন্দের মাছ ইলিশ কিনতে পেরে খুশি মনে বাড়ি ফিরছেন তারা।

এ সময় কয়েকজন নির্মাণ শ্রমিক ও অটো চালক জানান, হাঁট বাজারের তাঁজা ইলিশ তাদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে গেছে। দামে সস্তা মাঝারি সাইজের এসব ইলিশের মান ও স্বাদের প্রশংসাও করেন তারা।

আব্দুল লতিফ নামে ইলিশ বিক্রেতা বলেন, সপ্তাহে দুই দিন যাত্রাবাড়ি মৎস্য আড়ত থেকে এসব কাটা ইলিশ মাছ সংগ্রহ করেন। বিক্রি করেন ফেরি করে। এখন ইলিশের দাম বেশি। তাই প্রতি কেজি ইলিশ ২০০ টাকা বিক্রি করতে হচ্ছে। ভোরের কুয়াশা কাটার আগেই ২টি ভ্যানে বিক্রির জন্য প্রায় ৬ মণ ইলিশ নিয়ে বের হচ্ছেন। চাহিদা থাকায় দুপুরের মধ্যেই সব ইলিশ বিক্রি হয়ে যাবে।

জানা যায়, স্থানীয় মাছের বাজারে এক কেজি ওজনের একটি ইলিশ বিক্রি হচ্ছে প্রায় ৮০০-১০০০ টাকা পর্যন্ত। ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে বাঙালির খাবার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে রূপালী ইলিশের নাম। জাতীয় মাছ নদীর তাঁজা ইলিশের স্বাদ নিতে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে হাজারো মানুষের ভিড় জমে মুন্সিগঞ্জের পদ্ম নদীর তীর ঘেষা মাওয়া ঘাট এলাকায়। এছাড়াও জেলার শ্রীনগরের বাঘড়া, ভাগ্যকুল ও বালাশুর মাছের বাজারগুলোতে তাঁজা ইলিশ নিতে অসংখ্য মানুষ আসেন। তবে বাজার থেকে অধিক দামে নিন্মআয়ের সাধারণ মানুষের পক্ষে সচারাচর পছন্দের ইলিশ কেনা সম্ভব হয়ে উঠে না। তাই অসময়ে প্রিয় ইলিশ মাছ ভক্ত মানুষের কাছে সস্তায় মাত্র ২০০ টাকা কেজিতে এসব কাঁটা ইলিশ কিনতে পারাটাও অনেক আনন্দের।

নিউজজি

Leave a Reply