সিরাজদিখানে পরাজিত সদস্য প্রার্থীর কর্মীদের বাড়িতে হামলা লুটপাটের অভিযোগ

সিরাজদিখান উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পরাজিত সদস্য প্রার্থী সোহেল মৃধার কর্মীদের বাড়ি-ঘর ও দোকানে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাসাইল ইউনিয়নের পশ্চিম ব্রজেরহাটি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নবনির্বচিত ইউপি সদস্য মুরাদ হেসেনের নেতৃত্বে এ হামলা হয়েছে বলে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন সোহেল মৃধা।

লিখিত অভিযোগে নিজের কর্মী আবদুর রহমান মৃধা, মিজান ও দুলালের বাড়িতে ৪টি ঘর, ২টি দোকন ভাংচুর ও প্রায় ৮ লাখ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুটপাটের দাবি করেছেন সোহেল।

হামলায় আহতরা হলেন, আব্দুর রহমান মৃধা (৭৫), সুমী আক্তার (২২), জোনায়দ (৭), শিল্পী বেগম (৫৫) ও শেখ ইমরান (৩৫)। তাদের মধ্যে গুরতর আহত শেখ ইমরানকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সোহেল মৃধা (৪০) ইউপি নির্বাচনে বাসাইল ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ফুটবল প্রতীকের মেম্বার প্রার্থী ছিল। ২৬ ডিসেম্বর পরাজিত হলে সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিজয়ী প্রার্থী পশ্চিম ব্রজেরহাটি গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মো: মুরাদ হোসেন (৩৫), তার ভাই রিয়াদ (৩০), অনিক (২৮), আকাশ (২২), মৃত আব্দুল সামাদের ছেলে আবুল হোসেন (৬২), মৃত মহাসীন শিকদারের ছেলে আজাদ শিকদার (৪৫) ও আলিম শিকদারসহ (৪৮) প্রায় ২ শ’ লোক এসে আব্দুর রহমান মৃধার (৭৫) বাড়িতে ঢুকে তাকে মেরে আহত করে এবং তারা ৩টি ঘরে ঢুকে ভাংচুর করে। এ সময় নগদ ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা ও ৪ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। বাবুল হোসেন ছেলে মিজানের (২২) বাড়ি ভাংচুর ও তার আলমারি থেকে নগদ ১ লাখ টাকা নিয়ে যায়। দুলাল মিয়ার (৫৫) পশ্চিম ব্রজেরহাটি বাজারের ২টি মুদি দোকানের তালা ভেঙে ক্যাশ বাক্সে থাকা নগদ ১১ হাজার টাকা নিয়ে যায় এবং তার বাড়িতে ঢুকে বিল্ডিংয়ের দরজা ভেঙে ঘর ঢুকে আলমারি থেকে নগদ ৫ লাখ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ হয়েছে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

আলোকিত মুন্সীগঞ্জ

Leave a Reply