শ্রীনগরে বেরিবাঁধের জায়গা দখল করে ইউপি সদস্যর অফিস নির্মাণ

শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুলে পদ্মা নদীর তীর ঘেঁষা বেরিবাঁধের জায়গা দখল করে স্থানীয় ইউপি সদস্য ব্যক্তিগত অফিস নির্মাণ করছেন। এনিয়ে এলাকায় জনমনে প্রশ্ন উঠেছে। ভাগ্যকুল ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য মো. সেলিম মৃধার বিরুদ্ধে এই অফিস নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভাগ্যকুল বাজার সংলগ্ন বেরিবাঁধের দক্ষিণ পাশে মৃধা বাড়ির সামনে নদী সিকস্তি জায়গা দখল করা হয়েছে। এরই মধ্যে নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যর ছবিসহ একটি ব্যানার সাটানো হয়েছে। প্রায় ১২ ফুট প্রস্থ ও ২০ ফুট দৈর্ঘ নির্মাণাধীন ঘরে শ্রমিকরা কাজ করছেন।

দেখা যায়, নদীর সংলগ্ন বেরিবাঁধ রক্ষায় গাছের গুড়ি ও জমাটকৃত সিমেন্ট ও বালুর বস্তা ফেলা হয়েছে। জানা যায়, বেরিবাঁধটি (পানি উন্নয়ণ বোর্ডের) গত বর্ষা মৌসুমে পদ্মা নদীতে বন্যার অতিরিক্ত পানির চাপ সামলাতে উপজেলা প্রশাসন বাঁধটি রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এ বাঁধের ওপরে খুঁটি গেরে ঘরটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে করে বাঁধটি হুমকির মুখে পড়েছে।

এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. সেলিম মৃধার কাছে জানতে চাইলে তিনি দাবি করেন এটা আমাদের নিজস্ব জায়গা। ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে পারমিশন নিয়ে অফিস নির্মাণ করছি।

ভাগ্যকুল ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মনোয়ার হোসেন শাহাদাতের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেম্বারকে আমাকে বলে এটা আমার জায়গা ঘর উঠাবো। আমি বলেছি তোমার জায়গা হলে তুমি ঘর উঠাও।

এ বিষয়ে ভাগ্যকুল ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ সহকারী কর্মকর্তা মো. হান্নান বলেন, ঝুঁকিপুর্ণ বেরিবাঁধে আমরা কোন ভাবেই ঘর নির্মাণের অনুমতি দিতে পারি না। সরেজমিন পরির্দশন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজজি/

Leave a Reply