শ্রীনগরে কাঁচা রাস্তায় চলাচলে চরম ভোগান্তিতে এলাকাবাসী

জেলার শ্রীনগর উপজেলার বীরতারা ইউনিয়নের একটি কাঁচা রাস্তার কারণে চলাচলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে এলাকাবাসী। বিশেষ করে ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ওই রাস্তার পাশের কারিগরপাড়ার ১৬০টি পরিবারের প্রায় ৮ শ মানুষ চলাচলে বেশি দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন।

তাদের স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল, বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি ও স্থানীয় হাটবাজার এবং নানা কাজকর্মে যাতায়াতের জন্য একমাত্র কাঁচা রাস্তাটি ব্যবহার করে গন্তব্যে আসা-যাওয়া করতে হয়। বর্ষা মৌসুমে ভাঙা ও উঁচু-নিচু রাস্তায় কাঁদামাটি ও পানি জমে একেবারেই যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকে। বাধ্য হয়েই নাজুক রাস্তায় স্থানীয়রা হাঁটা-চলা করছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেয়া যায়, বীরতারা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিকল্পনা কেন্দ্রের সামনে থেকে কারিগরপাড়া হয়ে বীরতারা জামে মসজিদ সংলগ্ন প্রায় ১ কিলোমিটার সংযোগ রাস্তাটির বেহাল দশা লক্ষ্য করা গেছে। সংস্কারের অভাবে উঁচু-নিচু রাস্তাজুড়ে অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে কারিগরপাড়ার দিকে প্রায় ৪ শ ফুট রাস্তা একেবারেই সরু।

এছাড়া, আজগর আলীর বাড়ির সামনে ও সরকারি ক্লিনিকটির সামনে দেখা গেছে জরাজীর্ণ দুটি কাঠের পুল। কাঁচা রাস্তাটি বীরতারা বাজার ও ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের ষোলঘর বাস স্ট্যান্ডের সংযোগের পাকা সড়কের শাখা রাস্তা এটি। তাই কারিগরপাড়া ও বীরতারাবাসীর সড়ক পথের যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে কাঁচা রাস্তাটির গুরুত্ব অনেক।

এলাকাবাসী জানান, প্রায় ৭/৮ বছর আগে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জালাল মাস্টারের আমলে হালট রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়। এরপর রাস্তার উন্নয়ণে তেমন কোন কাজ হয়নি। বর্ষার পানিতে নিচু রাস্তাটি ডুবে যায়। এতে এলাকাবাসীর নৌকায় করে যাতায়াত করতে হয়। এছাড়া, শিশু, বৃদ্ধ ও অসুস্থ রোগী নিয়ে রাস্তার বেহাল দশার কারণে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। রাস্তাটির উন্নয়ন কাজের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্টদের সুদৃষ্টি কামনা করেন ভুক্তভোগীরা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শেখ জাহাঙ্গীর সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৫/৬ বছরের মধ্যে রাস্তার উন্নয়নে কোন কাজ হয়নি। ওই এলাকায় বিশেষ করে এই ওয়ার্ডের কারিগরপাড়ার মানুষগুলো রাস্তার অভাবে সারা বছর কষ্ট করছেন। এটা ভাষায় প্রকাশ করার মত না। রাস্তার কাজের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ সভায় প্রস্তাব রাখছি। মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে চেয়ারম্যান সাহেব কাঁচা রাস্তাটির উন্নয়ন কাজের জন্য সামনে বরাদ্দ দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

নিউজজি

Leave a Reply