মন্দিরের জমি উদ্ধার ও রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ফেগুনাসার শিব মন্দিরের জায়গা বেদখলের নেওয়ার অভিযোগ তুলে বেহাত হওয়া জায়গা উদ্ধার ও জমি রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) দুপুর ১১টার দিকে উপজেলার মালখানগর এলাকায় মন্দিরটি সংলগ্ন সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে অংশনেয় মন্দিরের ভক্ত সহ সনাতন ধর্মাবলম্বী ও স্থানীয় শতাধিক এলাকাবাসী।

মানববন্ধনকারীরা অভিযোগ করে বলেন, বহু শতাব্দী প্রাচীন কাল থেকে ফেগুনাসার শিব মন্দিরটিতে পূজা অর্চনা করে আসছে স্থানীয় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। মন্দিরটিতে থাকা শিবলিঙ্গ এশিমা মহাদেশের সবচেয়ে বড়, যা প্রত্ন নিদর্শন হিসাবেও গুরুত্ব বহন করে। তবে মন্দিরের মোট জমি ২০২শতাংশের মধ্যে অধিকাংশই বেদখলে নিয়েছে ভূমিদস্যুরা। জাল দলিল করে বাকি থাকা জমিও দখলের নেওয়ার পায়তারা করছে কতিপয় ভূমিদস্যু। সম্প্রতি মূল মন্দিরের ভবনের পাশে কাটাতারের বেড়া দেওয়া হয়েছে। মন্দিরের জায়গা নিয়ে মামলা চলমান থাকলেও বিরোধপূর্ণ জমিতে স্থাপনা তৈরি চলছে । এতে মন্দিরে পূজা কার্যক্রম ব্যাহত ও নিরাপত্তার নিয়ে শংকিত থাকতে হচ্ছে ভক্তদের।

এঅবস্থা থেকে নিরসনে প্রশাসনের মাধ্যমে বেদখল হওয়া জমি উদ্ধারের দাবি জানান তারা। একই সাথে শান্তিপূর্ণ ভাবে পূজা অর্চনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুবীর চক্রবর্তী, মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদা অনিল রায়, সহ-সভাপতি শান্তিধর, স্থানীয় ইউপি সদস্য কুরবান আলী মৃধা, কাইয়ুম খান স্বপন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ফেগুনাসার মন্দিরের বিরোধপূর্ন জমি নিয়ে মুন্সিগঞ্জ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। তবে বিরোধপূর্ণ জমিতেই জহিরুল হক বেপারী নামের একটি পক্ষ স্থাপনা নির্মান করে চলেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সোনালীনিউজ

Leave a Reply