মুন্সীগঞ্জে পাঁচ হাজার অবৈধ গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্ন

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক-সংলগ্ন টেঙ্গারচর ও ভবেরচর ইউনিয়নের চার গ্রামের পাঁচ হাজার অবৈধ গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। রবিবার সকাল ১১টা থেকে বিকাল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

এদিকে অভিযান চলাকালে অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহার করায় মোশারফ হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে দশ হাজার টাকা আর্থিক দণ্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জি.এম. রাশেদুল ইসলাম এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

অভিযান সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গজারিয়া উপজেলা এলাকায় স্থানীয় দালালচক্র মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে এলাকায় অবৈধ গ্যাস সরবরাহ করে। ফলে সংলগ্ন এলাকায় শিল্প প্রতিষ্ঠানের গ্যাস সরবরাহ কমে গিয়ে উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছিল।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ আঞ্চলিক বিপনন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সুরুজ আলম জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক হয়ে মূল সঞ্চালন লাইন থেকে তিন ইঞ্চি ব্যাসার্ধের পাইপের মাধ্যমে টেঙ্গারচর ও ভবেরচর ইউনিয়নে চার গ্রামের ঘরে ঘরে অবৈধ আবাসিক সংযোগ নেওয়া হয়। মিরেরগাঁও, উত্তরশাহপুর, বৈদ্দেরগাঁও, আনারপুরা ওই চার গ্রামের প্রায় পাঁচ হাজার রাইজার গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। অবৈধ গ্যাস সংযোগ অপরাধে এক ব্যক্তিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্নের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এমন আরও অন্য ইউনিয়নে অবৈধ সংযোগ রয়েছে, সেগুলোতেও শিগগির অভিযান চালাব।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জি.এম. রাশেদুল ইসলাম জানান, দুপুর থেকে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কাজ করছিল। দুপুরে আনারপুরা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মোশারফ হোসেন নামে ওই ব্যাক্তির একটি গ্যাস সংযোগের অনুমতি ছিল, কিন্তু সে অবৈধভাবে ৪-৫টি সংযোগ চালাচ্ছিল। তাই তাকে জরিমানা করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমিকভাবে অভিযান পরিচালনা করে গজারিয়া উপজেলার সকল অবৈধ গ্যাসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply