টঙ্গিবাড়ীতে অফিস কক্ষে ঢুকে প্রধান শিক্ষককে মারধর

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীতে অফিস কক্ষে ঢুকে প্রধান শিক্ষককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার উপজেলার ১৪নং পশ্চিম সোনারং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মিজানুর রহমান ২ জনকে আসামি করে টঙ্গীবাড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে ঘটনার পর থেকে আসামিরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন টঙ্গিবাড়ী থানার ওসি রাজিব খান।

আহত প্রধান শিক্ষক জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় বাসিন্দা চুন্নু মাদবর সকাল পৌনে ৯টার বিদ্যালয়ের সামনের দোকানে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। নিষেধ করলে সে আমাকে বাঁশের লাঠি দিয়ে মারধর করে। আমার চিৎকার শুনে শিক্ষকরা এগিয়ে এসে আমাকে উদ্ধার করে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে নিয়ে যায়। এরপর চুন্নুর ছেলে শরিফ মাদবর দলবল নিয়ে আমাকে মারার জন্য বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ঢোকার চেষ্টা করে।

তিনি আরও জানান, এ সময় বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রিয়াজুল ইসলাম এবং দপ্তরী আক্তার হোসেন তাদেরকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায় চুন্নু মাদবর বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে প্রবেশ করে সব শিক্ষকের সামনে আমাকে আবার কিল-ঘুসি-লাথি মারতে থাকে। এ ঘটনায় আমি গুরুতর আহত হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আনজুমান আরা বেগম জানান, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টঙ্গিবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুহাম্মদ রাসেদুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

সমকাল

Leave a Reply