সাবেক ইউপি সদস্যের জমি দখলের অভিযোগ

মো. নাজির হোসেন: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার শিলই ও পূর্বরাখী মৌজার প্রায় ১৫ একর ফসলি জমি জোর করে দখল করে রাখার অভিযোগ উঠেছে শিলই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো. ইসমাঈল বেপারীর বিরুদ্ধে। এছাড়াও শিলই এলাকায় রজত রেখা নদী দখল করে স্থাপনা নির্মাণ ও নদীর পানি প্রবাহ সম্পূর্ণ বন্ধ করে দিয়ে বালুর ব্যাবসা করে আসছে সে। এ নিয়ে গেলো ৯ নভেম্বর জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন স্হানীয়রা।

ইসমাঈল মেম্বার শিলই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাসেম লিটন এর ছোট ভাই। তার সাথে জমি দখলে জড়িত রয়েছে তার আরেক ভাই কাসেম বেপারী ও চাচা সেরু বেপারী।

এলাকাবাসীর অভিযোগ তার বড় ভাই সাবেক চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায়, জোর করে দখলে নেয় প্রায় ১৫ একর জমি। ভূক্তভোগীরা জমি ফিরত চেয়েও না পেয়ে হতাশায় দিন কাটাচ্ছে। সরেজমিনে গেলে ভূক্তভোগী প্রায় ২৫ টি পরিবার তাদের জমি জোর করে রাখার অভিযোগ করেন ইসমাঈলের বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী ইসমাঈল বেপারীর চাচাতো ভাই হাজি শাহাদাত বেপারী বলেন, ইসমাইল মেম্বার থাকা অবস্থায় আমাদের পূর্ব শিলই মৌজায় ৯৬ শতাংশ জমি ও পূর্বরাখী মৌজায় প্রায় ১৫০ শতাংশ জমি জোর করে দখল করে নেয়। আমাদের সম্পত্তিতে সে আমাদের ভোগ দখলে যেতে দিচ্ছেনা। জোর করে খাচ্ছে।

সাবেক ইউপি সদস্য জজ মিয়া সর্দার (৬০) বলেন, আমি ২০০০সালে আমির মিজি থেকে ৯৬শতাংশ জমি কিনি। সাবেক ইসমাঈল মেম্বার আমার কিনা জমি জোর করে ভোগ দখল করছে। আমি আমার জমি উদ্ধার করতে গেছে আমাকে ইসমাঈল নানাভাবে হয়রাণী করছে।

শাহারা খাতুন বলেন, আমার শাশুড়ী মারিয়া খাতুনের এবং তার বাবার বাড়ির ৩ একর ৫০ শতাংশ সম্পত্তি দখল করে নিয়েছেন ইসমাঈল মেম্বার। এখোন সে আমাদের জমিতে পুকুর কেটে মাছ চাষ করছেন। এছাড়াও ভুক্তভোগী আরোও অনেকেই তার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ তুলেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইসমাঈল বেপারীর মুঠোফোনে একাধিকবার বার যোগাযোগ করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আরেক অভিযুক্ত সেরু বেপারী বলেন, আমি অন্যের জমি দখল করতে যাবো কেনো। আমার জমি কি কম আছে৷ আমার জমিতে হেঁটেও শেষ করতে পারবেন না।

এ ব্যাপারে শিলই ইউপির ৩ নং ওয়ার্ড সদস্য দ্বীল মোহাম্মদ বলেন, ইসমাঈলের কাছে মানুষ জমি পাবে এটা সঠিক। দুদিন আগেও ইসমাঈলের কাছে পাওনা জমি নিয়ে মারামারি হয়েছে। ওরা ভাইয়েরা ভাইয়েরা এ ব্যবসা করেই খায়।

এ ব্যাপারে শিলই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. পারভেজ মৃধা বলেন, কিছু লোক আমার কাছে এ ধরনের অভিযোগ নিয়ে এসেছিল। এ জমিগুলো তার ভাই চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় তিনি দখলে নেন।

সান নিউজ

Leave a Reply