বাবা পরাজিত প্রার্থীর সমর্থক হওয়ায় পরীক্ষা দিতে পারেনি ছেলে!

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় হোসেন্দী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইউনিয়ন পরিষদের উপনির্বাচনে তার সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী হেরে যাওয়ার পর বিজয়ী চেয়ারম্যানের রোষানলে পড়েছেন বলে দাবি ওই শিক্ষার্থীর। আজ রোববার এ ঘটনা ঘটে।

পরীক্ষা দিতে না পারা শিক্ষার্থীর নাম মো. আকিব। সে হোসেন্দী গ্রামের রোকন সরকারের ছেলে।

আকিব জানায়, আজ থেকে তাদের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হয়েছে। তাই সকালে পরীক্ষা দিতে বাড়ি থেকে বিদ্যালয়ের উদ্দেশে সহপাঠীদের সঙ্গে বের হয় সে। বিদ্যালয়ের সামনে গেলে আগে থেকে ওঁত পেতে থাকা বিজয়ী চেয়ারম্যানের সমর্থকরা তাদের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা থেকে নামিয়ে প্রথমে সবাইকে হুমকি দেয়। পরে মারধর করে তাদের তাড়িয়ে দেয়। স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের সহযোগিতায় অন্য পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারলেও, সে পরীক্ষা দিতে পারেনি।

বিষয়টি সম্পর্কে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খবিরুল আলম বলেন, ‘অষ্টম শ্রেণির একজন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেয়নি। শুনেছি পথে কী যেন একটা ঝামেলা হয়েছে। কিছু শিক্ষার্থীকে অভিভাবক এবং পুলিশের সহায়তায় পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে দেখা গেছে। এর পেছনে কী কারণ রয়েছে, তা আমার জানা নেই। তবে, যে শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পারেনি বিশেষভাবে তার পরীক্ষা নেওয়া যায় কি না, এ ব্যাপারে আমি ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে দেখব।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নির্বাচিত চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠু বলেন, ‘পরীক্ষা দিতে পারেনি বা মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। থানায় অভিযোগও হয়নি। উল্টো পরাজিত মাহবুবের লোকজন আমার সমর্থকদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুট করে নিয়ে গেছে। ১০ জনের মতো লোক আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।’

বিষয়টি সম্পর্কে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোহেব আলী বলেন, ‘এ ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।’

এনটিভি

Leave a Reply