সিরাজদিখানে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের অবৈধ কৃষি জমি ভরাট বন্ধ করে দিল এলাকাবাসী

নাছির উদ্দিন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার শিকারপুর, বড়বর্ত্তা ও কেয়াইন মৌজাভুক্ত কৃষি জমির শ্রেনী পরিবর্তন না করেই দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু দিয়ে ভড়াট করে আসছিল আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ। শনিবার বেলা ১১টার দিকে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে কেয়াইন ইউনিয়নের কুচিয়ামারা অংশের ড্রেজারের পাইপ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

জানাযায়, প্রায় ২০ বছর পূর্বে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার ইউনিয়নের কচিয়ামোড়া এলাকার কিছু জমি কিনে ও জায়গা ভাড়া নিয়ে
সাইনবোর্ড টানিয়ে হাউজিং ব্যবসা শুরু করে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ। পরবর্তীতে স্থানীয় নিরীহ লোকের জমি জোরপূর্বক দখলসহ আল মুসলিম গ্রুপের ক্রয়কৃত জমিও দখলে নেয়ার চেষ্টা করে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ। পরবর্তীতে আল মুসলিম গ্রুপের লোকজন তাদের ক্রয়কৃত জমিতে সাইনবোর্ড দিতে গেলে আমীন মোহাম্মদ গ্রুপের ভাড়াটিয়া ক্যাডার বাহিনী মারধর করে ও সাইনবোর্ড উচ্ছেদ করে। পরবর্তীতে আল মুসলিম গ্রুপ আদালতে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলা করলে গত ২৯শে ফেব্রুয়ারী মুন্সিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত আল-মুসলিম বিল্ডারস লিমিটেডের ও সাধারণ জনগনের শতশত বিঘা জমি জোরপূর্বক দখল ও প্রতারণার অভিযোগে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সহ মোট নয় জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। এতে স্থানীয় জমি মালকদের মাঝে কিছুটা স্বস্তি ফিরে আসে এবং আমি মোহাম্মদ গ্রুপের কেডার বাহিনিরাও পিছিয়ে পরে। তারই ধারাবাহিকতায় ২মার্চ শনিবার বেলা ১১টার দিকে এলাকাবাসী আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের ড্রেজারের পাইপ খুলে দেয়।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় কিছু লোকজনের বাড়ির উপর দিয়ে ড্রেজার পাইপ নিয়েছিল আমীন মোহাম্মদ গ্রুপ। তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা বলে দুইটি পাইপ খুলেছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে সেখানে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

Leave a Reply