স্মৃতিকথা – দোলা ইব্রাহিম

হেঁটে হেঁটে বহুদুর যাত্রা সঙ্গী নেই কেহ,
হাঁটছি আমি নিসর্গে সঙ্গে স্মৃতিটুকু!
সুয্যি ডুবে সন্ধ্যা নামে রুপসার তীরে,
মেঘ চিরে যেন চন্দ্র টাও ফিনিক হেসে ওঠে! বিস্তারিত… »

দোকানির ঠোংগা – তাসলীমা খানম

লিখনির কতো গভীরে গেলে
সত্যিকারের একটি কবিতা লিখা যায়,
সত্যিকারের কবিতা লিখতে চাই
তাই পরে থাকি কবিতায় । বিস্তারিত… »

মায়া মোহের সমন্বয় – তাসলীমা খানম

যতোবার তোমায় দেখবো বলে
আসি যাই ততই তুমি আমাকে না
দেখার ভান করে দূরে দূরে থাকো

উল্লসিত মন আধাপাকা দাড়িগোঁফে বিস্তারিত… »

ভিন গ্রহ – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

মুখোর হলোনা, তুখোর হলোনা,
ঘুমন্ত রাত হেন।
নেই হৈ হৈ, তেমন রই রই,
উৎসবহীন মাঠ যেন। বিস্তারিত… »

মুষ্টিবদ্ধ হাত – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

ওরে গর্জন, কোথা থেকে অর্জন,
কোন সূত্র পথে মিলাই কোন?
কোন কোন রেখা, কোন বিন্দুকে মিলে? বিস্তারিত… »

স্বপ্নে ভাসে সুখ – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

শুকতারা সম, তব তোমার নব
বদনে শশী হাসে তায়।
চাঁদের কোনে, আপন মনে,
জোনাক তাতে লোকায়। বিস্তারিত… »

মতামত – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

সুবুজে মাখা দেশটার রেশটা তারুন্যে উজ্জীবিত।
সবুজের রং সরতে যেয়ে, হালকা হয়ে হয়ে প্রায় মৃত।
ভয়টা সেখানে, ভাবতে থাকাদের মনে।
এ বেলা নি:শ্বাসে নি:শ্বাসে প্রতিটা ক্ষনে। বিস্তারিত… »

ভোটের ঢোল – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

অমানিশার ঘোর কালিতে, চাঁদের হাসি নাচে।
নির্বাচনী ঢোল বেজেছে পুরো দেশটা জুড়ে।
ভোটের ঢোলে ডাকছি মোরা, গনতন্ত্রের সুরে।
নিজের মতো রায়টা দাও ভাই, একটু ভেবো তবে। বিস্তারিত… »

রাজাকার নয় মুক্তি – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

বাঙ্গালীরা বেশতো খুশি,
রাজাকার মুক্তিযোদ্ধার ঘুষাঘুষি, আরতো দেশে নাই।
জামায়াতে মুক্তিযোদ্ধা আমরা খুঁজে পাই!
মুক্তিযুদ্ধ চায়নি যারা,স্বাধীন বাংলা দূরে সড়া। বিস্তারিত… »