মঈন ফখরুদ্দিন ঈদ করছেন যুক্তরাষ্ট্রে

বাংলাদেশের বহুল আলোচিত-সমালোচিত ১/১১-এ কেয়ারটেকার সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দিন আহমেদ ঈদ করছেন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে। তিনি বাস করেন ম্যারিল্যান্ডে এবং সেখানকার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে খন্ডকালিন শিক্ষকতা করেন। বিস্তারিত… »

গ্রীনকার্ড দেখিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ঢোকেন ফখরুদ্দীন?

মাহফুজুর রহমান, নিউইয়র্ক থেকে ॥ এক-এগারোর তত্ত্বাবধায়ক সরকারপ্রধান ফখরুদ্দীন আহমদও আমেরিকার গ্রীনকার্ডধারী। তিনি গ্রীনকার্ড পেয়েছেন দীর্ঘ দেড় দুই যুগ আগে। বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, বাংলাদেশের সরকারপ্রধান হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে যখন এসেছিলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারপ্রধান ফখরুদ্দীন আহমদ তখন তিনি ইমিগ্রেশনে বাংলাদেশের পাসপোর্টে নয়, আমেরিকার গ্রীনকার্ডধারী হিসেবে চেক -ইন করেছিলেন। তাঁর এই আচরণ বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের প্রতি চরম অবমাননাকর ছিল। বিস্তারিত… »

ওয়ান-ইলেভেনের সেই উপদেষ্টারা এখন

ওয়ান-ইলেভেনের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সেই উপদেষ্টারা এখন নিজেদের কাজ নিয়েই ব্যস্ত আছেন। বেশির ভাগই তাদের পেশাগত জীবন নিয়ে ব্যস্ত আর বাকিরা সামাজিক জীবন থেকেও নিজেদের গুটিয়ে রেখেছেন। বিস্তারিত… »

ছাত্র-সেনা সংঘর্ষের ঘটনায় মইন-ফখরুদ্দীনের বিচারের সুপারিশ

২০০৭ সালের আগস্টে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘটিত সহিংস ঘটনার জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ ও সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল মইন উ আহমদ, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক মেজর জেনারেল এ টি এম আমিন, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফজলুল বারী ও কর্নেল শামসুল আলমকে দায়ী করে প্রতিবেদন উত্থাপন করা হয়েছে। বিস্তারিত… »

ফখরুদ্দীন-মইনের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

২০০৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্র-সেনা সংঘর্ষে জড়িত থাকার অভিযোগে তত্ত্বাধায়ক সরকারের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দীন আহমদ ও সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল (অব.) মইন উ আহমেদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা বিস্তারিত… »

মুখ খুলবেন ফখরুদ্দীন!

দুলাল আহমদ চৌধুরী: সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে ২০০৭ সালের আগস্ট মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সেনা-ছাত্র সংঘর্ষের ঘটনায় নিজের ভূমিকা সম্পর্কে মুখ খুলতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকারী সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ। তার ঘনিষ্ঠ সূত্র এমন আভাস দিয়েছে। তিনি এর আগে জবাবদিহির জন্য সংসদীয় কমিটির ডাকেও সাড়া দেননি। বিস্তারিত… »

ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন: ‘দায়িত্বশীলদের’ শাস্তির সুপারিশ

গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতনের ঘটনায় বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ‘দায়িত্বে থাকা’ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গঠিত একটি উপকমিটি। বিস্তারিত… »

ফখরুদ্দীন-মইন সম্পর্কে ফাটল

উইকিলিকসের নথি থেকে
সেনা সমর্থিত গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় চার উপদেষ্টার পদত্যাগের ঘটনা নিয়ে প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দীন আহমদ ও সেনাপ্রধান মইন উ আহমেদের মধ্যে সম্পর্কে ফাটল দেখা দিয়েছিল। একসঙ্গে হজ পালনের মধ্য দিয়ে তাঁদের সম্পর্কের বন্ধন আবার দৃঢ় হওয়ার আশা করেছিলেন অনেকে। বিস্তারিত… »

ড. ফখরুদ্দীন ঢাকায়ই থাকতে চেয়েছিলেন

‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের পর দেশে থাকতে চান এবং সেটা ঢাকায়। তার নিরাপত্তার ব্যাপারে সরকার ব্যবস্থা নেবে বলে তার আশা। কারণ তিনি একা এক বাড়িতে থাকেন। দেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হওয়ায় তিনি খুব সন্তুষ্ট। এ ছাড়া দেশের ভবিষ্যৎ অর্থনৈতিক উন্নতির ব্যাপারেও তিনি বেশ আশাবাদী।’ বিস্তারিত… »