স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা হত্যায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা

মুন্সীগঞ্জের রামপাল ইউনিয়ন জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান হত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার বিকেলে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. তাইফুল ইসলাম টিপুর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। আজ সকাল ৮টার দিকে মিরকাদিম বাজার এলাকায় নিজ বাসার তালা ভেঙে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিবৃতিতে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমান সরকারের শাসনামলে দেশে আইনের শাসন না থাকায় সন্ত্রাসীরা একের পর এক নৃশংস কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাওয়ার দুঃসাহস পাচ্ছে। আজ মুন্সীগঞ্জ সদর থানার রামপাল ইউনিয়ন জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানকে পৈশাচিকভাবে হত্যা সেই দুঃসাহসেরই বহিঃপ্রকাশ। এ ধরনের নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সন্ত্রাসীদের বেপরোয়া ও বর্বরোচিত কর্মকাণ্ডের কারণে দেশবাসী সর্বদা আতঙ্কিত। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা এখন চরম হুমকির মুখে। এ সন্ত্রাসীদের দৌরাত্ম্য থেকে দেশকে মুক্ত করতে না পারলে জাতি হিসেবে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়বে।’

বিএনপির মহাসচিব অবিলম্বে মিজানুর রহমানের হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান। তিনি নিহত মিজানুর রহমানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকাহত পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়স্বজনদের প্রতি গভীর সহমর্মিতা প্রকাশ করেন।

অপর এক বিবৃতিতে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাধারণ সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু এবং সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল বারী বাবু মিজানুর রহমানকে হত্যার ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। নেতৃবৃন্দ মিজানুর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এনটিভি

Leave a Reply