ছাত্রলীগের সাবেক নেতা বিপুলকে পিস্তলের বাট দিয়ে পিটিয়ে আহত

সন্ত্রাসীরা পিস্তলের বাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে মুন্সীগঞ্জ শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মালেকুন মাকসুদ বিপুলকে। রোববার শহরের লিচুতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা শহরের দক্ষিণ কোর্টগাঁও এলাকার তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী।

ছাত্রলীগ নেতা মালেকুন মাকসুদ বিপুল জানান, মুন্সীগঞ্জ সদরের চরাঞ্চলের সৈয়দপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ সমর্থিত ইউসুফ গং একটি মারামারি মামলায় রোববার মুন্সীগঞ্জ ১ নং আমলী আদালতে হাজিরা দিতে আসেন।এ সময় প্রতিপক্ষের আনিস ও মীর হোসেন গং শহরের যুবলীগ সমর্থিত ক্যাডার শাহজাহালকে ভাড়া করে তাদের ওপর লেলিয়ে দেয়।

এ ঘটনার খবর পেয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিস উজ্জামান আনিসের ছেলে জালালউদ্দিন রুমি রাজন ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মালেকুন মাকসুদ বিপুল আদালত চত্বরে গিয়ে ইউসুফ গংদের নিরাপদে নিয়ে আসেন।

এতে চাঁদাবাজি, মাদক, ছিরতাইসহ মুন্সীগঞ্জ থানার ১৮-২০ মামলার আসামি শাহজালাল ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শাহজালালের নেতৃত্বে বাবু মিজি, মানিক, আজিজ, নির হোসেনসহ ৮-১০ জনের একদল সন্ত্রাসী মালেকুন মাকসুদ বিপুলের ওপর শহরের দক্ষিণ কোর্টগাঁও এলাকার লিচুতলায় হামলা চালায়। এ সময় পিস্তলের বাট দিয়ে বিপুলের মাথায় কয়েকটি আঘাত করে।

শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাঠি দিয়ে আঘাত করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। আহত বিপুল মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো. মফিজুর রহমান জানান, সন্ত্রাসী শাহজালাল ও তার সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

পূর্ব পশ্চিম

Leave a Reply