টংগিবাড়ীতে ইলিশ কিনে জেলে গেল ২৬ জন

মুন্সীগঞ্জের টংগিবাড়ীতে নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ মাছ কেনার দায়ে ২৬ জনকে ৫ দিন করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় এক হাজার কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়।

শনিবার (২৬ অক্টোবর) ভোরে পৃথক ২টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তাদের আটক করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও টঙ্গীবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ হাসিনা আক্তার এ অভিযান পরিচালনা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার পুড়াপাড়া গ্রামের শুভ বেপারী, আকাশ শেখ, মো. দুলাল, সাব্বির বেপারী, ফাহিম, দোরাবর্তি গ্রামের শাহিন, আব্দুল হাই, মকবুল ঢালী, তোফাজ্জল হোসেন, মঙ্গল বিশ্বাস, রাউৎভোগ গ্রামের শাহিন, শান্ত, শাহিদ, নগরকান্দি গ্রামের শরীফ, সেলিম, কুড়মিড়া গ্রামের কাদির হালদার, নয়াগাও গ্রামের জাহিদুল ইসলাম, আদাবাড়ি গ্রামের মোবারক, নগরকান্দি গ্রামের ফয়সাল, হাসকিড়া গ্রামের নিরু, ধীপুর গ্রামের সেলিম, লৌহজং উপজেলার ডহুরী গ্রামের তাজেল বেপারী, শাকিল, সিলেট জেলার ধর্মপাশা উপজেলার টাইগাওঁ গ্রামের বাবুল, সারারকোনা গ্রামের রোজেল মিয়া।

এ দিন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে কোস্টগার্ড ও উপজেলা মৎস্য বিভাগ এ অভিযান চালায়। এ সময় পাঁচগাঁও ইউনিয়নের সামনের প্রধান সড়ক থেকে ৩শ কেজি ইলিশ মাছসহ ৫ জনকে এবং হাসাইলের পদ্মা নদী থেকে ৭শ কেজি ইলিশ মাছসহ ২১ জনকে আটক করা হয়। পরে মাছগুলো উপজেলার ১১টি মাদ্রাসা ও ১টি মন্দির ও টঙ্গীবাড়ী হাসপাতালে দুস্থ রোগী এবং উপস্থিত দুস্থদের মধ্যে বিতরণ করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও টঙ্গীবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার জানান, পৃথক ২টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে ২৬ জনকে ইলিশ মাছ কেনার দায়ে ৫ দিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply