কাতারে দ্বন্দ্বের জেরে মুন্সীগঞ্জে হামলা, মা ও ছেলেমেয়ে আহত

প্রবাসে দ্বন্দ্বের জের ধরে মুন্সীগঞ্জে এক বাড়িতে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার মহাখালী ইউনিয়নের ছোট মাকহাটি গ্রামে এ হামলা হয়। এতে আহত হয়েছেন মর্জিনা বেগম (৫৫), তাঁর মেয়ে আলো বেগম (৩৯) ও ছেলে আল আমিন ঢালী (৩৫)। ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন, হামলাকারীরা তাদের বাড়িতে লুটপাটও চালিয়েছে।

আল আমিনের ভাষ্য, একই গ্রামের রাসেল হোসেন ও তাঁর ভাই ইমন হোসেনের মালিকানায় কাতারে বোরকার কারখানা রয়েছে। বছর পাঁচেক আগে সেখানে কাটিং মাস্টার হিসেবে যোগ দেন ছোট ভাই মহসিন ঢালী। এক বছরের চুক্তির মেয়াদ শেষে মহসিন অন্য জায়গায় কাজের চেষ্টা করেন। কিন্তু রাসেল ও ইমন মারধর করে তাদের কারখানায় কাজ চালিয়ে যেতে বাধ্য করেন। এই সময়ের মধ্যে মহসিনকে তারা দেশেও ফিরতে দেননি।

আল আমিন ঢালী আরও জানান, দু’দিন ধরে কাজে যোগ দিচ্ছিলেন না তাঁর ভাই। এতে কারখানা মালিকের লোকজন বাড়িতে এসে হুমকি-ধমকি দেওয়া শুরু করে। বুধবার দুপুরে ইমনের নির্দেশে মানিক ও জয়ের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন এতে হামলা চালায়। এ সময় তিনজনকে পিটিয়ে আহত করে ও ঘর থেকে নগদ টাকা-স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। পরে আহতরা মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেন ইমন হোসেন। বর্তমানে তিনি দেশেই আছেন জানিয়ে মোবাইল ফোনে দাবি করেন, কাতার থেকে বাংলাদেশে আসার নাম করে মহসিন ঢালী তাঁর ভাই রাসেলের কাছ থেকে ৬ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছেন। তাদের বাবা এ বিষয়ে কথা বলতে মহসিনের বাড়িতে যান। এ সময় তাঁকে অপমান করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়।

হামলার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) লিটু গাজী বলেন, বাড়িঘর ভাঙচুরের সত্যতা পেয়েছেন। তবে কারা এতে জড়িত, তা জানতে তদন্ত চলছে। কেউ অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সমকাল

Leave a Reply