সিরাজদিখান উপজেলা যুবলীগ আহবায়কের বিরুদ্ধে নৌকার ক্যাম্পে গিয়ে হুমকি ও পোস্টার ছাড়ার অভিযোগ

নাছির উদ্দিন: সিরাজদিখান উপজেলা পরিষদের অস্থায়ী চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মইনুল হাসান নাহিদের বিরুদ্ধে নৌকার ক্যাম্পে গিয়ে হুমকি ও তার কর্মীর বিরুদ্ধে পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টায় নন্দনকোনা বাজারে আওয়ামীলীগের সমর্থীত নৌকা প্রার্থীর প্রচারনা ক্যাম্পে ঘটে এই ঘটনা।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নন্দনকোনা বাজারে আওয়ামীলীগের সমর্থীত নৌকা প্রার্থীর প্রচারনা ক্যাম্পে এসে মোঃ হারুন (৫২) ও নাহিদা আক্তার টুম্পা (৩৬) নৌকার পোষ্টার ছিড়ে ফেলে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ট্রাক মার্কার পোষ্টার লাগায়। তখন কোলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি কপাসের হোসেনসহ স্থানীয় লোকজন বাধা দিলে মৃত মারফত আলী শেখের ছেলে হারুন ও রাজ্জাকের স্ত্রী নাহিদা আক্তার টুম্পা তাদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে যুবলীগের আহবায়ক মইনুল হাসান নাহিদ, নোভেল, লিটনসহ ২৫/৩০ জন লোক নৌকা প্রার্থীর প্রচারনা ক্যাম্পে এসে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ হুমকি দিয়ে বলে যে কেউ যদি ফের নৌকার নির্বাচন করে তাহলে তাদের সবাইকে হাত পা ভাঙ্গে ফেলবে।

এ বিষয়ে কোলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি কপাসের হোসেন বলেন, বিকালে ৪টায় স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম সারোয়ার কবির লোকজন আমাদের ক্যাম্পে এসে পোস্টার ছিড়ে ফেলে ও সেগুলোতে পাড়ায়। পরবর্তীতে রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা পরিষদের অস্থায়ী চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক একটি মাইক্রো ও ২০/২৫ টি হোন্ডা নিয়ে এসে আমাদের নির্বাচনী ক্যাম্পে গালিগালাজ করে।বিভিন্ন হুমকি দিয়ে বলে ৭তারিখে নির্বাচন শেষ ৮তারিখ থেকে কে কোথায় থাকবে দেখে নেওয়া হবে। পরবর্তীতে আমি থানা গিয়ে অভিযোগ করি।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত অফিসার বিষয়টি তদন্ত করছে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply