নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা নির্মাণ, পরিদর্শনে গিয়ে আহত এলটি

উপজেলার সোনারং ব্রিজ হতে বেতকা চৌরাস্তা পর্যন্ত পাঁচ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন রাস্তায় নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ
টঙ্গীবাড়ি উপজেলার সোনারং ব্রিজ হতে বেতকা চৌরাস্তা পর্যন্ত পাঁচ কোটি এক লাখ টাকায় নির্মাণাধীন রাস্তায় নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। পচা পিকেট ইট, নিম্নমানের বালুর মিশ্রণে নির্মাণ কার্যক্রম চালাচ্ছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান।

অনিয়মের অভিযোগে এলজিইডি মুন্সীগঞ্জ ল্যাব টেকনিশিয়ান (এলটি) আব্দুর রবসহ একটি টিম সরেজমিন রবিবার সন্ধ্যায় পরিদর্শন ও মালামাল পরীক্ষার জন্য যান। সেখানে এলটি নি¤œমানের সামগ্রীর ব্যবহার দেখে আপত্তি করলে ঠিকাদারের প্রতিনিধি কৌশিক ও সিজান তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। আহত এলটি চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর সূত্র জানান।

স্থানীয়রা জানান, ঠিকাদার নিজেকে গোপালগঞ্জের লোক বলে যাকে তাকে হুমকি-ধমকি দেয়। কারও কথার কোনো পাত্তা দেয় না।
টঙ্গীবাড়ি উপজেলা প্রকৌশলী শাহ মোয়াজ্জেম লিখিতভাবে ঠিকাদারকে নিম্নমানের ইটের খোয়া দ্বারা গ্রেডেশন বহির্ভূতভাবে চেইনেজের একপাশে রাতে খোয়া লেডাউন করার কথা জানিয়েছেন।

উপজেলা প্রকৌশলী শাহ মোয়াজ্জেম আরও জানান, ঠিকাদারকে অতীব জরুরিভাবে জানানো হয় ডিজাইন মোতাবেক নিম্নমানের মালামাল অপসারণপূর্বক পরবর্তী কার্যক্রম করার।

জনকন্ঠ

Leave a Reply