নির্বাচন ঘিরে সরগরম লৌহজং

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ঘিরে উত্তাপ-উত্তেজনা বিরাজ করছ। সমর্থকদের ব্যক্তিগত বিরোধও নির্বাচনী ইস্যুতে পরিণত হয়েছে। এক প্রার্থী আরেক প্রার্থীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করছেন, হামলা, মামলাও হয়েছে।

নির্বাচনে দলীয় নেতাকর্মীরা দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ঘিরে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। সরগরম উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন।

এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এক নারীসহ তিন জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রশিদ শিকদার (কাপ পিরিচ) ও ধনাঢ্য ব্যবসায়ী বি এম শোয়েবের (দোয়াত কলম) মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে এলাকার ভোটারদের অভিমত। অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন বেজগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য লাকী মল্লিক (আনারস)।

প্রার্থী আব্দুর রশিদ শিকদার লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও উষা ক্রীড়াচক্রের সাধারণ সস্পাদক। তিনি সবসময় এলাকায় অবস্থান করেন। এলাকাবাসীর কাছে তিনি তৃণমূলের নেতা হিসেবে পরিচিত।

অপর প্রার্থী বিএম শোয়েব লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি সিআইপি। এফবিসিসিআই ও বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস এসোসিয়েশনের পরিচালক।

চেয়ারম্যান হিসেবে এবারই প্রথম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তারা। এই দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ঘিরে সমর্থকদের মধ্যে উত্তাপ-উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ উপজেলায় পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিন জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন তপন (চশমা), জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সলিমুল্লাহ খান সেন্টু (তালা) ও উপজেলা যুবলীগের কার্যকরী সদস্য মো. জামাল হোসেন (টিউবওয়েল)।

এই পদে ত্রিমুখী লড়াই হতে পারে। তবে, তোফাজ্জল হোসেন তপন ও সলিমুল্লাহ খান সেন্টুর মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে ভোটারদের ধারণা।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে চার জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিনা ইসলাম (হাঁস), মাকসুদা খানম (পদ্মফুল), তানিয়া আফরোজ (কলস) ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শামীমা খানম আভা (ফুটবল)।

এই পদে রিনা ইসলাম ও তানিয়া আফরোজার মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে লৌহজংয়ের ভোটারদের অভিমত।

দ্বিতীয় ধাপে আগামী ২১ মে লৌহজং উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এ উপজেলার মোট ভোটার এক লাখ ৬৬ হাজার ৭৯৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮৬ হাজার ৬৬ এবং নারী ভোটার ৮০ হাজার ৭৩২ জন। উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ৬১টি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে।

অবজারভার

Leave a Reply