৯ আগস্ট নাগাসাকি বার্ষিক শান্তিস্মারক অনুষ্ঠানে ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণ না জানানোর সিদ্ধান্ত

রাহমান মনি তবে এ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাবেন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত।
নাগাসাকি শহরের মেয়র বলেছেন, তিনি আগামী ৯ আগস্ট শহরটিতে মার্কিন আণবিক বোমা হামলার বার্ষিকী পালনের অনুষ্ঠানে জাপানে নিযুক্ত ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণ না জানানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাবেন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত।

গতকাল সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র সুযুকি শিরো তার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গাজা উপত্যকায় ভয়াবহ মানবিক পরিস্থিতির বিপর্যয় এবং একইসঙ্গে সারা বিশ্বের মানুষ কীভাবে এই সংকটটিকে দেখছেন, তার আলোকে এই কঠিন সিদ্ধান্ত তিনি নিয়েছেন।

সুযুকি আরও বলেন, আগামী ৯ আগস্টের অনুষ্ঠানে অপ্রত্যাশিত ঘটনার ঝুঁকি তিনি উড়িয়ে দিতে পারেন না। সেই অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য হলো আণবিক বোমা হামলায় নিহতদের উদ্দেশ্যে শোক প্রকাশ করা, তাই তিনি কোনো ধরনের বাধা বরদাস্ত করবেন না।

নাগাসাকি মেয়র বলেন, আমন্ত্রণ জানানোর পরিবর্তে গাজায় সহিংসতা অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানিয়ে ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূতকে তিনি একটি চিঠি পাঠাবেন।

মেয়র সুযুকি দৃঢ়তার সাথে বলেন, তার শহর যথারীতি জাপানে নিযুক্ত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণপত্র পাঠাবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে প্রদান করা ‘শান্তির প্রতীক’ রূপী একটি স্মারকস্তম্ভ ‘ও মাই বার্ড’ গত ২৮ মে নাগাসাকি শহরের ‘শান্তি উদ্যানে’ স্থাপন করা হয়। এই উপলক্ষে এক অনারম্ভড় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী মোক্তাদির চৌধুরী, নাগাসাকি শহরের মেয়র সুযুকি শিরো, বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাবুদ্দীন আহমেদ এবং আণবিক বোমা হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া লোকজনদের সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: জাপান জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা

ডেইলি ষ্টার

Leave a Reply