গোবর নিয়ে দুই নারীর ঝগড়া, কারণ জানতে গিয়ে প্রাণ গেল যুবকের

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে উঠানে গরুর গোবরকে কেন্দ্র করে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের কিল ঘুষিতে সুমন বেপারি (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার (৬ মে) দুপুরে মুন্সীগঞ্জ আদালতে পাঠানো আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়েছেন।

জানা গেছে, ঘটনার সময় বুকে ঘুষি মারলে অসুস্থ হয়ে পড়েন সুমন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজধানীর স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে গতকাল বুধবার ৫ জুন দুপুর ১টার দিকে উপজেলার রাজানগর বেপারিপাড়ার আব্বাস বেপারির বাড়ির উঠানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সিরাজদিখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নিহত সুমন বেপারিপাড়া গ্রামের আব্বাস বেপারির ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ইকবাল বেপারি (৩৯), সিম্পা বেপারি (৫০) ও রুপা বেগম (৩৭) নামে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহতের বোন শিমা বেগম ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ৫ জুন বুধবার সকালে নিহত সুমন বেপারির বাড়ির উঠানের সামনে রুপা বেগম গোরব রাখলে সুমনের স্ত্রী ইতি বেগমের সঙ্গে কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। পরবর্তীতে দুপুর ১টার দিকে সুমন বাড়িতে এলে তার স্ত্রী বিষয়টি তাকে জানায় এবং সুমন ঝগড়ার কারণ জানতে রুপার কাছে গেলে রুপার স্বামী ইকবাল বেপারি ও তার ভাই সিম্পা বেপারি মিলে সুমনকে মারধর করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পরে। তখন স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে ঢাকায় স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ ওসি মুজাহিদুল ইসলাম সুমন বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা পোস্টকে বলেন, এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আজ দুপুরে মুন্সীগঞ্জ আদালতে পাঠিয়েছে। পরে আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়েছে।

ব.ম শামীম/এমএএস

Leave a Reply